পুঁজিবাজারে গতিশীলতা নিয়ে আসতে প্রকৃত উদ্যোক্তাদের উৎসাহ দিতে হবে – ভূমিমন্ত্রী

(ঢাকা, বুধবার, ১০ ফেব্রুয়ারি, ২০২১) ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী বলেছেন পুঁজিবাজারে গতিশীলতা আনয়নে প্রকৃত উদ্যোক্তাদের ‘গ্রিনফিল্ড প্রকল্প’ (সম্পূর্ণ নতুন অবকাঠামো নির্মাণ করে স্থাপিত শিল্প/প্রকল্প) গ্রহণে উৎসাহ দিয়ে পুঁজিবাজারে আসার আহবান করতে হবে। এতে পুঁজিবাজারের উপর বিনিয়োগকারীগণের আস্থা বৃদ্ধি পাবে ও সার্বিকভাবে ‘উইন-উইন সিচুয়েশন’ তৈরি হবে।

গতকাল, ৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ তারিখ, মঙ্গলবার বাংলাদেশের পুঁজিবাজার উন্নয়নে প্রবাসী বাংলাদেশী ও বিদেশী বিনিয়োগকারীদের কাছে বাংলাদেশের পুঁজিবাজারে বিনিয়োগ সম্ভাবনা উপস্থাপনার লক্ষ্যে বাংলাদেশ সিকিউরিটি অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) আয়োজনে সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাইয়ে এক হোটেলে ‘দ্য রাইজ অব বেঙ্গল টাইগার: পটেনশিয়ালস অব বাংলাদেশ ক্যাপিটাল মার্কেটস’ (বাংলার বাঘের উদয় – বাংলাদেশের পুঁজিবাজারের সম্ভাবনা) শীর্ষক চারদিনব্যাপী এক রোডশো-এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী এ কথা বলেন। এসময় দুবাইয়ে নিযুক্ত বাংলাদেশের কনসাল জেনারেল মো. ইকবাল হোসেন খান উপস্থিত ছিলেন।

চট্টগ্রাম চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সাবেক সভাপতি ও বর্তমান ভূমিমন্ত্রী প্রথমদিনের সম্মেলনে আরও বলেন, যথাযথ গবেষণা ও শৃঙ্খলাবদ্ধ বিনিয়োগ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ পুঁজিবাজারের জন্য। এ বিষয়ে কনসালটেন্সি সার্ভিস প্রদানে প্রবাসীদের জন্য বিনিয়োগের পরিবেশ সৃষ্টি করবে বলে তিনি মত প্রকাশ করেন। এসময় সাইফুজ্জামান চৌধুরী পুঁজিবাজারের ঝুঁকিপূর্ণ প্রকৃতির বিষয়ে তাঁর ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতাও তুলে ধরেন। তিনি বিএসইসি-এর বর্তমান নেতৃত্বের প্রশংসা করেন এবং বর্তমান কমিশনকে তাঁদের বিভিন্ন উদ্যোগের জন্য ধন্যবাদ জানান।

সম্মেলনের বিশেষ অতিথি যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মোঃ জাহিদ আহসান রাসেল করোনা মহামারী কালীন সময়ে প্রচুর রেমিট্যান্স দেশে পাঠানোর জন্য উপস্থিত প্রবাসী বাংলাদেশীদের ধন্যবাদ জানান।

গতকাল রোডশো-এর প্রথমদিন প্রবাসী বাংলাদেশী ও বিদেশী বিনিয়োগকারীদের কাছে আবেদন সৃষ্টির লক্ষ্যে পৃথক দুটি পর্বে ‘বাংলাদেশের পুঁজিবাজার’ শীর্ষক বিনিয়োগ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। আজ রোডশো-এর দ্বিতীয় ও কাল তৃতীয়দিন প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের জন্য যথাক্রমে ‘সুকুক (ইসলামি বন্ড): বাংলাদেশে নতুন বিনিয়োগের সুযোগ’ ও ‘বাংলাদেশে বেসরকারি ভেঞ্চার ক্যাপিটাল এবং প্রাইভেট ইক্যুইটি খাতে বিনিয়োগের সুযোগ’ শীর্ষক বিনিয়োগ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবার কথা রয়েছে। এছাড়া রোডশো-এর শেষদিন, ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২১ তারিখ শুক্রুবার আগ্রহী বিনিয়োগকারীগণের সাথে দ্বিপক্ষীয় ও বহুপক্ষীয় সভা অনুষ্ঠিত হবার কথা রয়েছে।

রোডশো-এর প্রথমদিনের সম্মেলনে অনলাইন বিও (বেনিফিশিয়ারি ওনার্স) অ্যাকাউন্ট খোলার পোর্টাল উদ্বোধন করা হয়। এর মাধ্যমে প্রবাসী বাংলাদেশী নাগরিকগণ অনলাইনে তাদের অ্যাকাউন্ট খুলতে সক্ষম হবেন। এই রোডশো প্রবাসী বাংলাদেশী ও বিদেশী বিনিয়োগকারী ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে বাংলাদেশের পুঁজিবাজারে বিনিয়োগে উৎসাহিত করবে বলে আশা করা হচ্ছে।

সম্মেলনের সভাপতি বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) চেয়ারম্যান অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলাম তাঁর বক্তব্যে বাংলাদেশের ব্যাংকিং খাতে দীর্ঘকাল ধরে বিদ্যমান ম্যাচিউরিটি মিসম্যাচ সমস্যা সমাধানের জন্য বন্ড ও সুকুকের মাধ্যমে দীর্ঘমেয়াদী তহবিল সংগ্রহের জন্য পুঁজিবাজারের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকার কথা তুলে ধরেন।

বিনিয়োগ সম্মেলনে আরও বক্তব্য রাখেন ইউসিবি স্টক ব্রোকারেজ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ রহমত পাশা, ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ-এর পরিচালক অধ্যাপক ড. মো: মাসুদুর রহমান, আল হারামাইন গ্রুপের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মাহতাবুর রহমান, ইউসিবিএল-এর নির্বাহী কমিটির চেয়ারম্যান আনিসুজ্জামান চৌধুরী। সম্মেলনে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন আইডিএলসি ফিনান্স লিমিটেডের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক আরিফ খান। সম্মেলনে প্রশ্নোত্তর পর্বে প্যানেলিস্ট হিসেবে অংশগ্রহণ করেন বিএসইসি-এর নির্বাহী পরিচালক মাহবুব উল আলম, বাংলাদেশ মার্চেন্ট ব্যাংকার্স অ্যাসোসিয়েশনের (বিএমবিএ) সভাপতি সাইদুর রহমান, ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ এর প্রধান পরিচলন কর্মকর্তা এম সাইফুর রহমান মজুমদার, লংকাবাংলা সিকিউরিটিজ লিমিটেডের সিইও খন্দকার সাফাত রেজা ও মিডওয়ে সিকিউরিটিজের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো.আশিকুর রহমান। দুবাইয়ের বেশ কয়েকজন বিশিষ্ট ব্যক্তিও এই রোডশোতে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *