সিবিআইয়ের জেরার মুখে চিৎকার করে উঠলেন রিয়া

বিনোদন ডেস্ক / লিগ্যাল ভয়েস টোয়েন্টিফোর :

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর ঘটনায় রিয়া চক্রবর্তীকে গত তিনদিন ধরে লাগাতার জিজ্ঞাসাবাদ করছে সিবিআই। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করছেন আইপিএস অফিসার নূপুর প্রসাদ; যিনি কিনা সুশান্ত মৃত্যু তদন্তে সিবিআই টিমের নেতৃত্ব দিচ্ছেন।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, শনিবার জিজ্ঞাসাবাদের সময় বেশ কিছু প্রশ্নের উত্তরে ঘাবড়ে যান রিয়া। গ্রেফতার হয়ে যেতে পারেন এই আতঙ্কে ভুগতে থাকেন তিনি। প্রশ্নের মুখে ভয়ে ঘেমে যান। টানা ৭ ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় তাকে। জিজ্ঞাসাবাদের মাঝে চিৎকার করে ওঠেন রিয়া। কী এমন প্রশ্ন করা হয়েছিল তাকে, যে প্রশ্নের উত্তরে তিনি ঘাবড়ে গিয়ে চিৎকার করে ওঠেন।
জানা যায়, রিয়াকে জিজ্ঞাসাবাদের সময় বলা হয়, তিনি সুশান্তের সঙ্গে ‘লিভ ইন’ সম্পর্কে ছিলেন স্বামী-স্ত্রীর মতোই। সুশান্তের মানসিক অবস্থা সম্পর্কেও তিনি ওয়াকিবহাল ছিলেন। তিনি যদি নির্দোষ হন, তাহলে কেন বৈজ্ঞানিক পরীক্ষার (পলিগ্রাফ টেস্ট) জন্য প্রস্তুত নন? কেন তাকে গ্রেফতার করা হবে না? আর, এর পরেই চিৎকার করে ওঠেন রিয়া চক্রবর্তী।

রিয়াকে নূপুর প্রসাদ বলেন, আমরা যদি আপনাকে চটজলদি গ্রেফতার করি তাহলে আপনি কি নিজেকে সঠিক প্রমাণ করতে পারবেন? তাহলে কেন তদন্তে সাহায্য করছেন না?

সিবিআইয়ের জেরা
রিয়াকে আরো প্রশ্ন করা হয়, সুশান্তের মৃত্যুর জন্য নিজেকে তিনি কতটা দায়ী মনে করেন? সুশান্তের আকস্মিক মৃত্যু কি আপনার অসুখের কারণ ছিল? আপনি যদি বিশ্বাস করেন যে আপনার চলে যাওয়ার পরে সুশান্ত আত্মহত্যার মতো পদক্ষেপ নিয়েছিলেন, নিজের এই ভাবনার কথা কাউকে কি বলবেন বলে ভেবেছিলেন? যদি ভেবে থাকেন, তাহলে কাকে বলেছিলেন? সুশান্ত কি কখনও আপনাকে বলেছে, যে তিনি নিজেকে শেষ করতে পারেন? কোনও প্রশ্নেরই রিয়া স্পষ্ট উত্তর দিতে পারেননি।
অনেক প্রশ্নের উত্তরে রিয়া বলেছেন মনে নেই, সেক্ষেত্রে সিবিআইয়ের কর্মকর্তারা রিয়াকে মনে করার সময়ও দিয়েছেন।

সিবিআইয়ের কর্মকর্তারা মনে করছেন, রিয়া কিছু তথ্য গোপন করছেন। রিয়া চক্রবর্তীসহ এই মামলায় অভিযুক্তদের পলিগ্রাফ পরীক্ষা করা হতে পারে।
শুক্রবার-শনিবার-রোববার রিয়াকে তিনদিনে ১৭ ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *