যুদ্ধ নয়, আক্রমণ প্রতিহতের সক্ষমতা চায় বাংলাদেশ : প্রধানমন্ত্রী

 

সিনিয়র রিপোর্টার

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বাংলাদেশ কারো সঙ্গে যুদ্ধ নয়, বাইরের যেকোনো আক্রমণ প্রতিহত করার সক্ষমতা অর্জন করতে চায়।

আজ বৃহস্পতিবার গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যুক্ত হয়ে বাংলাদেশ নৌবাহিনীর নতুন যুদ্ধজাহাজ কমিশনিং করার সময় সরকারপ্রধান বলেন, ‘আমরা কারো সঙ্গে যুদ্ধ করতে চাই না…তবে বাইরের কোনো শত্রু যদি বাংলাদেশে আক্রমণ চালায়, তবে আমরা এটিকে প্রতিরোধ করার সক্ষমতা অর্জন করতে চাই।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, “জাতির পিতা পররাষ্ট্র নীতিমালা তৈরি করেছিলেন যে- ‘সবার সঙ্গে বন্ধুত্ব, কারো সঙ্গে শত্রুতা নয়’।“

‘আমরা এ নীতিতে বিশ্বাসী,’ বলেন প্রধানমন্ত্রী।

আজ নৌবাহিনীর পাঁচটি আধুনিক যুদ্ধজাহাজ কমিশন করেছেন শেখ হাসিনা। এর মধ্য দিয়ে নৌবাহিনীতে আনুষ্ঠানিকভাবে অপারেশনাল কার্যক্রম শুরু করতে যাচ্ছে দুটি আধুনিক ফ্রিগেট ‘বানৌজা ওমর ফারুক’ ও ‘আবু উবাইদাহ’, একটি করভেট যুদ্ধজাহাজ ‘প্রত্যাশা’ এবং দুটি জরিপ জাহাজ ‘বানৌজা দর্শক’ ও ‘তল্লাশি’।

প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে নৌবাহিনী প্রধান অ্যাডমিরাল এম শাহীন ইকবাল চট্টগ্রামের বানৌজা ঈসা খান নৌ জেটিতে জাহাজগুলোর ক্যাপ্টেনদের হাতে আনুষ্ঠানিকভাবে ‘কমিশনিং ফরমান’ হস্তান্তর করেন।

কমিশনিং ফরমান পাওয়া জাহাজ পাঁচটির ক্যাপ্টেনরা হলেন- প্রত্যাশার ক্যাপ্টেন এ এম শামসুল হক, ওমর ফারুকের ক্যাপ্টেন গাজী গোলাম মোর্শেদ, আবু উবাইদাহর ক্যাপ্টেন আশরাফুজ্জামান, তল্লাশির লেফটেন্যান্ট কমান্ডার কামরুল আহসান ও দর্শকের লেফটেন্যান্ট কমান্ডার নাজমুস সাকিব সৌরভ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *