বঙ্গবন্ধুর স্মৃতি বিজড়িত বিষয় নিয়ে ডিজিটাল জাদুঘর নির্মাণ করবে ভারত

স্টাফ রিপোর্টার / লিগ্যাল ভয়েস টোয়েন্টিফোর :

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি, এমপি বলেছেন, ভারত বাংলাদেশের বড় ব্যবসায়ীক অংশীদার এবং পরীক্ষিত বন্ধুরাষ্ট্র। উভয় দেশের বাণিজ্য দিনদিন বাড়ছে। বাংলাদেশী পণ্য ভারতে রপ্তানির ক্ষেত্রে কিছু সমস্যা রয়েছে। আলোচনার মাধ্যমে সমস্যাগুলো দুর করে ভারতে রপ্তানি বাড়ানো হবে। ভারত পণ্যের একটি বড় বাজার, বাংলাদেশের পণ্য রপ্তানির প্রচুর সুযোগ রয়েছে। আমরা এ সুযোগ কাজে লাগাতে চাই। বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শতবার্ষিকী এবং বাংলাদেশের স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষে ভারত বঙ্গবন্ধুর স্মৃতি বিজড়িত বিষয় নিয়ে একটি ডিজিটাল জাদুঘর নির্মাণের উদ্যোগ নিয়েছে। এ বিশেষ উদ্যোগকে আমরা স্বাগত জানিয়েছি।

বাণিজ্যমন্ত্রী আজ (২২ অক্টোবর) বাংলাদেশ সচিবালয়ে তাঁর অফিস কক্ষে ঢাকায় নবনিযুক্ত ভারতীয় হাই কমিশনার বিক্রম কুমার দোরাইস্মামীর সাথে মতবিনিময়ের পর সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ ভারত সীমান্ত এলাকায় স্থাপিত বর্ডার হাটগুলোতে উভয় দেশের মানুষের আগ্রহ বাড়ছে। আরও তিনটি বর্ডার হাট উদ্বোধনের অপেক্ষয় আছে। যত দ্রুত সম্ভব এ তিনটি বর্ডার হাট উদ্বোধন করা হবে। বাণিজ্য ক্ষেত্রে চলমান সমস্যাগুলো চিহ্যিত করা হয়েছে, আলোচনার মাধ্যমে এগুলো সমাধান করা হবে। আশা করা হচ্ছে, এর ফলে বাংলাদেশী পণ্যের রপ্তানি ভারতে অনেক বাড়বে।

উল্লেখ্য, গত ২০১৯-২০২০ অর্থ বছরে বাংলাদেশ ভারতে ১০৯৬.৩৮ মিলিয়ন মার্কিন ডলার মূল্যের পণ্য রপ্তানি করেছে, একই সময়ে ৫৭৭৪ মিলিয়ন মার্কিন ডলার মূল্যের পণ্য আমদানি করেছে। বাংলাদেশী পণ্য ভারতে রপ্তানির ক্ষেত্রে জটিলতাগুলো দুর হলে উভয় দেশের বাণিজ্য ব্যবধান কমে আসবে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে অতিরিক্ত সচিব(এফটিএ) মো. শহিদুল ইসলাম এবং ডব্লিউটিও এর মহাপরিচালক(অতিরিক্ত সচিব) মো. হাফিজুর রহমান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *