গুরুতর অসুস্থ কুদ্দুস বয়াতি, সাহায্য চাইলেন মেয়ে

দেশের অন্যতম জনপ্রিয় লোকসংগীতশিল্পী কুদ্দুস বয়াতি গুরুতর অসুস্থ। তিনি খাদ্যনালী ও ফুসফুসের সমস্যায় ভুগছেন। রাজধানীর মহাখালীর বক্ষব্যাধি হাসপাতালে তার চিকিৎসা চলছে। তার ছেলে আলমগীর কুদ্দুস জানান, প্রায় ১০দিন ধরে কিছুই খেতে পারছেন না তার বাবা। তাই ৮দিন আগে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

তিনি আরও জানান, কুদ্দুস বয়াতির চিকিৎসার জন্য এরমধ্যে হাসপাতালে বোর্ড গঠন করা হয়েছে। তবে উন্নত চিকিৎসার জন্য শিগগিরই বিদেশে নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন চিকিৎসকরা।

এদিকে বাবাকে বাঁচাতে প্রধানমন্ত্রীর সহায়তা চেয়েছেন কুদ্দুস বয়াতির মেয়ে তানহা কুদ্দুস প্রাপ্তি। ২১ ফেব্রুয়ারি বয়াতির ফেসবুক ওয়ালে বাবাকে বাঁচানোর আকুতি জানিয়েছে ছোট্ট তানহা ঠিক এভাবে-
‘আমার আব্বুকে হারাতে চাই না। আমি তানহা কুদ্দুস প্রাপ্তি। আমি আপনাদের সবার প্রিয় শিল্পী কুদ্দুস বয়াতির ছোট মেয়ে। আপনারা জানেন, আজ কয়েকদিন আমার আব্বু জাতীয় বক্ষব্যাধি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছে। মুখে কোনও খাবারই খেতে পারছে না, খাদ্যনালী বন্ধ হয়ে যাওয়ায়। এখন একমাত্র স্যালাইনই আব্বুর ভরসা।’

‘ডা. বলেছে উন্নত চিকিৎসার জন্য খুব দ্রুত দেশের বাইরে নিয়ে অস্ত্রোপচার করার জন্য। বাবার ফুসফুসের অবস্থা খারাপ হয়ে গেছে। তাই আমার আব্বুকে বাঁচাতে হলে ৩০ লাখ টাকা প্রয়োজন। যা আমাদের সাধ্যের বাইরে। তাই মমতাময়ী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে আমার আকুল আবেদন- আব্বুকে উন্নত চিকিৎসার জন্য সহায়তা করুন। আমি আব্বুকে হারাতে চাই না।’

তানহা কুদ্দুস প্রাপ্তির এমন আবেগঘন ফেসবুক পোস্টের নিচে একটি বিকাশ নাম্বারও দেওয়া হয়- সাহায্য পাঠানোর জন্য!
ফেসবুকে এমন লিখিত আবেদনের বিপরীতে প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে এখনও কোনও সাড়া পায়নি বলে জানান বয়াতি পরিবারের সদস্যরা। তবে এটাও জানা গেছে, তিন মাস আগে গত বছর ৮ নভেম্বর প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে ২০ লাখ টাকা অনুদান পেয়েছেন কুদ্দুস বয়াতি।

ছোটবেলা থেকেই কুদ্দুস বয়াতি গান করেন। তবে ১৯৯২ সালে তার গাওয়া ‘এই দিন দিন না/ আরও দিন আছে’ গানটি সারাদেশে দারুণ জনপ্রিয়তা পায়। এরপর থেকে তিনি নিয়মিত গাইছেন দেশ-বিদেশের মঞ্চে। অংশ নিয়েছেন অসংখ্য টিভি অনুষ্ঠানে। অর্জন করেছেন নানা পুরস্কার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *